1. mrrahel7@gmail.com : Admin : Mahbubur Rahel
  2. samadpress96@gmail.com : Samad Ahmed : Samad Ahmed
এবার ভাইরাল “জীবন খাতায় প্রেম” | moulvibazar24.com
বৃহস্পতিবার, ১৭ জুন ২০২১, ০২:১৭ অপরাহ্ন

এবার ভাইরাল “জীবন খাতায় প্রেম”

  • আপডেট সময় রবিবার, ৬ জুন, ২০২১

চৌধুরী ভাস্কর হোমঃ “আইলারে নয়া দামান, আসমানেরও চান” গানের পর এবার আলোচনায় উঠে এসেছে সিলেটের আরেকটি নতুন গান “জীবন খাতায় প্রেম”। সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও টিকটকে এই গানটি প্রচার হওয়ার সাথে সাথেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। সিলেট ছেলে পাগল হাসানের লেখা ও সুর করা লোকগীতি গেয়ে সারাদেশে ভাইরাল হয়েছেন সিলেটের মেয়ে বিথী চৌধুরী। আলোচনায় চলে এসেছে “জীবন খাতায় প্রেম” নামক গানটি।

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া “জীবন খাতায় প্রেম কলঙ্কের দাগ দাগাইয়া” গানের সব মিলিয়ে কোটির উপরে ভিউ হয়েছে। হাজার হাজার প্রশংসার কমেন্টে ভাসিয়ে দিচ্ছে এই তরুন শিল্পীকে।

সিলেটের মেয়ে বিথী চৌধুরীর কণ্ঠে গাওয়া “জীবন খাতায় প্রেম” গান ফেসবুক, টিকটক, ইউটিউব; সোশাল মিডিয়ায় বাংলাদেশের ট্রেন্ড এখন এই গান। মূলত পরিবারের সাথে ঘুরতে গিয়ে নৌকায় সুন্দর পরিবেশ দেখে শখের বসে নিজের কণ্ঠে সেলফি ক্যামেরা দিয়ে ভিডিও ধারণ করেছিলেন বিথী চৌধুরী। সেই গানের ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করার সাথে সাথেই গানটি ভাইরাল হয়ে যায়।

সম্প্রতি ভাইরাল হওয়া “জীবন খাতায় প্রেম” গান নিয়ে আলাপকালে গানের পিছনের গল্প ও নিজের স্বপ্নের কথ তুলে ধরেন শিল্পী বিথী চৌধুরী। তিনি জানান, সিলেটের বাইশ-টিলায় নৌকা ভ্রমণে গিয়ে সেখানে গান গেয়ে নিজের সেলফি ক্যামেরা দিয়েই ভিডিও ধারণ করেছিলেন। বর্তমানে ভাইরাল হওয়া গান তিনি গত ২৮ মে নিজের ফেসবুক থেকে শেয়ার করেন। আর তখনই রাতারাতি গানটি ভাইরাল হয়ে যায়। তার সাথে ইউকেলেলে ছিলেন এস এ মোহন।

বিথী চৌধুরী বলেন, আমি যখন ক্লাস ফাইভে পড়াশোনা করি তখন থেকেই গানের প্রতি আগ্রহ ছিল। সে সময় আমি গানের উপর তালিম নিয়েছি। ছোটবেলা থেকে গানের প্রতি আলাদা একটা টান ছিল। সেই টান থেকে গান গাওয়া শুরু। এবং প্রফেশনালি গান করতাম। সবসময় পরিবারের সবাই উৎসাহ দিয়েছেন। বাবা-মা সংগীত প্রিয় হওয়ায় গান করতে গিয়ে কোনো বাঁধার মুখে পড়তে হয়নি। বর্তমানে তিনি প্রফেশনালি গান করছেন।

বিথী চৌধুরী সিলেট জেলার টুকুর বাজারের কুরুমখোলা গ্রামের মেয়ে। এবং সিলেটের মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটি থেকে ইংলিশে অনার্স ফাইনাল ইয়ারে পড়াশোনা করছেন। এবং মাস্টার্সে এডমিশন নেবার পরই তিনি গানে ফোকাস দেবেন। পরিবারে বাবা, মা ও দুই বোনের মধ্যে বিথী বড়।

গান নিয়ে নিজের স্বপ্নের কথা জানতে চাইলে বিথী চৌধুরী বলেন, গান নিয়ে আমার অনেক স্বপ্ন আছে। তবে প্রথমও তো আগে আমার স্টাডিটা কমপ্লিট করবো। তারপর গানে ফোকাস দেবো। অনার্স শেষের পথে। ইচ্ছে আছে সিলেটের লোকগীতি পুরো বাংলাদেশ ও বিশ্বের কাছে পৌঁছে দেওয়ার। আমি চাই আমার সিলেটকে রিপ্রেজেন্ট করতে পুরো বিশ্বের কাছে। আমার বাংলাদেশকে রিপ্রেজেন্ট করতে।

বিথী আরও বলেন, ফেসবুকে শেয়ার করার পর হঠাৎ গানটি এভাবে ভাইরাল হয়ে যাবে তা তিনি ভাবেননি। দর্শক গানটি এতো পছন্দ করছে। আসলে দর্শকের ভালোবাসায়ই গানটি ভাইরাল হয়ে যায়। দর্শক এতোটা ভালবাসবে, রেসপেক্ট করবে। এটা আমি কখনো কল্পনা করিনি। আমার অকল্পনীয় একটা ঘটনা ঘটে যাওয়া আমার লাইফে। আসলে কোন কিছু না ভেবেই গানটি ছেড়ে ছিলাম কিন্তু বুঝিনি এতো তাড়াতাড়ি মানুষের মনের মধ্যে জায়গা করে নেবো।

এ সংক্রান্ত আরোও নিউজ