1. moulvibazar24.backup@gmail.com : admin :
  2. mrrahel7@gmail.com : rahel Ahmed : rahel Ahmed
  3. bm.ssc.batb@gmail.com : Shahab Ahmed : Shahab Ahmed
কোটচাঁদপুর আওয়ামীলীগ অফিসে হামলা - moulvibazar24.com
শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০২:২৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ খবর
কোটচাঁদপুর ম্যানেজিং কমিটির মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে গিয়ে দুই প্রার্থী লাঞ্ছিত ৩৬ বছর বিদেশে,অসুস্থ হয়ে রাজনগর ফিরলে গ্রহণ করেনি পরিবার! কুলাউড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় জাসদ নেতা নিহত আজিম উদ্দিন স্যার : উন্নত মানবিক গুনাবলী সমৃদ্ধ একজন মানুষ কাওয়াদীঘী হাওরের জলাবদ্ধতা দ্রুত নিরসন হবে… জেলা প্রশাসক শোকের মাস উপলক্ষ্যে মৌলভীবাজারে জটিল রোগীদের মাঝে চেক বিতরন মার্শাল আর্ট প্রতিযোগিতায় মৌলভীবাজার রানার্স আপ মৌলভীবাজারে কোভিড প্রতিরোধ ও স্বাস্থ্য বিষয়ক কর্মশালা মৌলভীবাজারে ইউনিয়ন ভুমি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা ইউপি চেয়ারম্যানের উপর হামলা চেষ্টায় কমলগঞ্জে যুবক আটক

কোটচাঁদপুর আওয়ামীলীগ অফিসে হামলা

  • প্রকাশের সময় মঙ্গলবার, ১২ জুলাই, ২০২২
  • ৩৯ পঠিত
কোটচাঁদপুর প্রতিনিধিঃ আওয়ামীলীগ অফিসে হামলার ঘটনায় ৫ জনকে আসামি করে কোটচাঁদপুর থানায় অভিযোগ করেছেন ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম (মোল্লা)।
সোমবার দুপুরে ওই অভিযোগ করেন তিনি। তবে বিষয়টি জানেন না থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জগন্নাথ চন্দ্র।
ভুক্তভোগী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সভাপতি রফিকুল ইসলাম মোংল্লা বলেন,ঝিনাইদহ কোটচাঁদপুর উপজেলার  কুশনা ইউনিয়নের ৯ নং ওয়ার্ডের হরিন্দীয়া  বাজারে অবস্থিত আওয়ামী অফিস। গেল ১০ জুলাই রাত ৮ টার দিকে সাবেক এমপি গ্রুপের নেতা ইসরাইল হোসেন সহ জামাত বিএনপির প্রায় শতাধিক নেতা-কর্মীরা ওই অফিসে হামলা চালায়।
এ সময় তারা অফিসের সামনে থাকা বিলবোর্ড ভাংচুর করেন। অফিসের দরজা বন্ধ করে দেয়ায়  তাদের হামলার হাত থেকে রেহাই পান ওই অফিসে থাকা নেতা-কর্মীরা।
বিষয়টি ওই রাতেই সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কে জানানো হয়। তবে রাত হয়ে যাওয়ায় ওইদিন থানায় অভিযোগ করা সম্ভব হয়নি। তবে সোমবার দুপুরে কোটচাঁদপুর থানায় অভিযোগ করা হয়। ওই অভিযোগে ৫ জনকে আসামি করা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে আরো ২০ জনকে।
অভিযুক্তরা হলেন,আওয়ামীলীগ নেতা ইসরাইল হোসেন,লাবলু রহমান ,রোকন উদ্দিন,আব্দুল্লা ও অমেদুল ইসলাম।
এ ব্যাপারে আওয়ামীলীগ নেতা ইসরাইল হোসেন বলেন, সম্প্রতি স্থানীয় কয়েক জন মসজিদে পিকনিক করে খাওয়া দাওয়া করেন। ওই ঘটনার জেরে তারা মসজিদের মোয়াজিনকে ক্লাবে ডেকে হুমকি-ধামকি দেন। এ ছাড়া গুজব ওঠে মোয়াজিনকে আটকিয়ে রাখার কথা। বিষয়টি জানাজানি হয়ে পড়ে এলাকায়। এতে করে তাদের বিরুদ্ধে ফুসে ওঠেন স্থানীয়রা।
পরে ওই অফিসে  মোয়াজিন নাই জানতে পেরে সবাই ফিরে আসেন। ওখানে কোন ভাংচুরের ঘটনা ঘটেনি।
এ ব্যাপারে কোটচাঁদপুর উপজেলার তালসার পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক আজগর আলী জানান, ওই ঘটনায় একটা অভিযোগ পেয়েছি। তবে তদন্ত শুরু করা হয়নি। আজ (মঙ্গলবার)  বিকালে তদন্তে যাওয়া হবে। আর তদন্ত শেষে বলা সম্ভব হবে প্রকৃত ঘটনাটি কি ঘটেছিল।
তবে এ ব্যাপারে কিছুই জানেন না কোটচাঁদপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক( তদন্ত) জগন্নাথ চন্দ্র। তিনি বলেন,এ ধরনের কোন ঘটনা ঘটেছে কিনা জানতাম না। এই প্রথম আপনাদের কাছ থেকে শুনতে পেলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই সংক্রান্ত আরোও খবর
© All rights reserved © 2019 moulvibazar24.com
Customized By BlogTheme