ঢাকা ১০:১৩ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জংলি শুকরের আক্রমণে আহত- ৩

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:০০:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩
  • / ৪৩২ বার পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে জংলি শুকরের আক্রমণে ৩ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে দুই জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হলেও একজনকে আশংকা জনক অবস্থায় সিলেট হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার গোয়ালবাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিম শিলুয়া গ্রামে ঘটেছে। ঘটনার পর স্থানীয় জনতা আত্মরক্ষার্থে শুকরটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান- খুব সম্ভবত স্থানীয় সমাই পাহাড় থেকে মহিষ আকৃতির একটি জংলী শুকর বস্তি এলাকায় নেমে আসে। ২/৩ দিন ধরে মন্ত্রীগাঁও, যোগীমুরা ও পশ্চিম শিলুয়া এলাকায় শুকরটি অবস্থান করে জমিতে ধানের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে। সোমবার সন্ধ্যার আগে হঠাৎ করে শুকরটি পশ্চিম শিলুয়া গ্রামে মানুষের উপর আক্রমণ চালায়।
শুকরের কামড়ে ও আছড়ে বাকই মিয়া (৭০), ইসহাক আলী (৬০) ও পারভেজ মিয়া (৩০) রক্তাক্ত আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যান। বাকই মিয়া ও ইসহাক আলীকে প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়। গুরুতর আহতাবস্থায় পারভেজ মিয়াকে সিলেট প্রেরণ করা হয়। তার শারীরিক অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- পারভেজের শরীরের বিভিন্ন স্থানে শুকরটি কামড় ও নকের আছড় দিয়েছে।

 

এ ঘটনায় স্থানীয় জনমনে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। এলাকার নারী-শিশুদের মধ্যে কান্নার রোল পড়ে। ভয়ে লোকজন শিশুদের রক্ষার্থে ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ করে দেন। পরে লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে জংলী শুকরটিকে ধাওয়া করে পিটিয়ে মেরে ফেলেন। এতে জনমনে স্বস্তি নেমে আসে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

জংলি শুকরের আক্রমণে আহত- ৩

আপডেট সময় ১০:০০:৫৪ অপরাহ্ন, সোমবার, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

মৌলভীবাজারের জুড়ীতে জংলি শুকরের আক্রমণে ৩ জন আহত হয়েছেন। এর মধ্যে দুই জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হলেও একজনকে আশংকা জনক অবস্থায় সিলেট হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
সোমবার সন্ধ্যায় উপজেলার গোয়ালবাড়ী ইউনিয়নের পশ্চিম শিলুয়া গ্রামে ঘটেছে। ঘটনার পর স্থানীয় জনতা আত্মরক্ষার্থে শুকরটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান- খুব সম্ভবত স্থানীয় সমাই পাহাড় থেকে মহিষ আকৃতির একটি জংলী শুকর বস্তি এলাকায় নেমে আসে। ২/৩ দিন ধরে মন্ত্রীগাঁও, যোগীমুরা ও পশ্চিম শিলুয়া এলাকায় শুকরটি অবস্থান করে জমিতে ধানের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে। সোমবার সন্ধ্যার আগে হঠাৎ করে শুকরটি পশ্চিম শিলুয়া গ্রামে মানুষের উপর আক্রমণ চালায়।
শুকরের কামড়ে ও আছড়ে বাকই মিয়া (৭০), ইসহাক আলী (৬০) ও পারভেজ মিয়া (৩০) রক্তাক্ত আহত হন। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে জুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যান। বাকই মিয়া ও ইসহাক আলীকে প্রাথমিক ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়। গুরুতর আহতাবস্থায় পারভেজ মিয়াকে সিলেট প্রেরণ করা হয়। তার শারীরিক অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

 

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান- পারভেজের শরীরের বিভিন্ন স্থানে শুকরটি কামড় ও নকের আছড় দিয়েছে।

 

এ ঘটনায় স্থানীয় জনমনে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। এলাকার নারী-শিশুদের মধ্যে কান্নার রোল পড়ে। ভয়ে লোকজন শিশুদের রক্ষার্থে ঘরের দরজা-জানালা বন্ধ করে দেন। পরে লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে জংলী শুকরটিকে ধাওয়া করে পিটিয়ে মেরে ফেলেন। এতে জনমনে স্বস্তি নেমে আসে।