ঢাকা ১১:৪৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ৯ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জুড়ীতে তিন শিক্ষককে বিদায়ী সংবর্ধনা

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০২:০৩:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩
  • / ২৫৩ বার পড়া হয়েছে

জুড়ী প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীতে ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক অরবিন্দ চন্দ্র শীল, সহকারী শিক্ষক বেণু ভূষণ গোস্বামী ও নাজমা সুলতানা’কে অবসরজনিত কারণে বিদায় সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার(২৫ মে) দুপুরে বিদ্যালয় মাঠে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও এলাকাবাসীর আয়োজনে এ সংবর্ধনা সভা অনুষ্টিত হয়।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও স্থানীয় ইউপি সদস্য কামরুল হাসান-এর সভাপতিত্বে ও মাছুম আহমদ-এর পরিচালনায় সংবর্ধনা সভায় বক্তব্য রাখেন সংবর্ধিত প্রধান শিক্ষক অরবিন্দ চন্দ্র শীল ও সহকারী শিক্ষক নাজমা সুলতানা। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি কাজী আমজাদ হোসেন, জুড়ী ক্রিকেট এসোসিয়েশনের সাবেক আহ্বায়ক আব্দৃল আহাদ, জুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মঞ্জুরে আলম লাল, সাবেক ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান মিলাদ চৌধুরী, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য সায়রুল আলম, চিকিৎসক কামাল আহমদ, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নাফিসা হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জগদিস গোসাং। মানপত্র পাঠ করেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাজেদা খানম।

বক্তারা তাদের বক্তব্যে প্রধান শিক্ষকের ভূয়শী প্রশংসা করে বলেন- প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে প্রধান শিক্ষক অরবিন্দ শীল হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করে, বিনা বেতনে, নিজের পকেটের টাকা খরচ করে বিদ্যালয়টিকে তিলে তিলে গড়ে তুলেছিলেন। লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা ও শরীরচর্চার দিক দিয়েও ছাত্ররা এগিয়েছে। তার অবদান এ এলাকাবাসী কোন দিন ভুলতে পারবে না। শুরু থেকে অবসর পর্যন্ত একই বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করে আজ বিদায় নিলেন। মিলাদ চৌধুরী তার বক্তব্যে বিদ্যালয়ের একতলা ভবনটি দু’তলা করে “অরবিন্দ চন্দ্র শীল ভবন” নামে নামকরণের দাবি জানান।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

জুড়ীতে তিন শিক্ষককে বিদায়ী সংবর্ধনা

আপডেট সময় ০২:০৩:৩৫ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

জুড়ী প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের জুড়ীতে ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা প্রধান শিক্ষক অরবিন্দ চন্দ্র শীল, সহকারী শিক্ষক বেণু ভূষণ গোস্বামী ও নাজমা সুলতানা’কে অবসরজনিত কারণে বিদায় সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার(২৫ মে) দুপুরে বিদ্যালয় মাঠে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি ও এলাকাবাসীর আয়োজনে এ সংবর্ধনা সভা অনুষ্টিত হয়।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও স্থানীয় ইউপি সদস্য কামরুল হাসান-এর সভাপতিত্বে ও মাছুম আহমদ-এর পরিচালনায় সংবর্ধনা সভায় বক্তব্য রাখেন সংবর্ধিত প্রধান শিক্ষক অরবিন্দ চন্দ্র শীল ও সহকারী শিক্ষক নাজমা সুলতানা। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি কাজী আমজাদ হোসেন, জুড়ী ক্রিকেট এসোসিয়েশনের সাবেক আহ্বায়ক আব্দৃল আহাদ, জুড়ী উপজেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মঞ্জুরে আলম লাল, সাবেক ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান মিলাদ চৌধুরী, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য সায়রুল আলম, চিকিৎসক কামাল আহমদ, বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নাফিসা হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জগদিস গোসাং। মানপত্র পাঠ করেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সাজেদা খানম।

বক্তারা তাদের বক্তব্যে প্রধান শিক্ষকের ভূয়শী প্রশংসা করে বলেন- প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে প্রধান শিক্ষক অরবিন্দ শীল হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করে, বিনা বেতনে, নিজের পকেটের টাকা খরচ করে বিদ্যালয়টিকে তিলে তিলে গড়ে তুলেছিলেন। লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধুলা ও শরীরচর্চার দিক দিয়েও ছাত্ররা এগিয়েছে। তার অবদান এ এলাকাবাসী কোন দিন ভুলতে পারবে না। শুরু থেকে অবসর পর্যন্ত একই বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করে আজ বিদায় নিলেন। মিলাদ চৌধুরী তার বক্তব্যে বিদ্যালয়ের একতলা ভবনটি দু’তলা করে “অরবিন্দ চন্দ্র শীল ভবন” নামে নামকরণের দাবি জানান।