ঢাকা ০৬:৫৯ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২৩, ২০ অগ্রহায়ণ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

জ্বালানির মূল্য পরিশোধে পুতিনের শর্ত মানতে নারাজ জি-সেভেন

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:১৬:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ মার্চ ২০২২
  • / ৩১৩ বার পড়া হয়েছে

ইউক্রেনে হামলার জেরে নিষেধাজ্ঞায় পতিত রাশিয়া থেকে জ্বালানি আমদানির মূল্য রুবলে মেটানোর শর্ত প্রত্যাখ্যান করেছে শিল্পোন্নত দেশগুলির গোষ্ঠী জি-সেভেন। এর ফলে চলতি সপ্তাহেই বিষয়টির নিষ্পত্তি না হলে ইউরোপে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হতে পারে।

ইউক্রেনে হামলার কারণে রাশিয়ার উপর একাধিক নিষেধাজ্ঞা চাপানো হয়েছে। কিন্তু সে দেশ থেকে জ্বালানি সরবরাহের উপর নির্ভরশীলতার কারণে প্রবল চাপের মুখেও এখনো পেট্রোলিয়াম, গ্যাস ও কয়লা আমদানি বন্ধ করেনি ইউরোপ।

ফলে প্রতিদিন কোটি কোটি ইউরো আয় করছে মস্কো। কিন্তু খোদ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউরো বা ডলারের বদলে রুবলে জ্বালানির দাম মেটানোর শর্ত চাপানোর ফলে নতুন সংকট সৃষ্টি হচ্ছে।

পুতিন শুধু ‘বন্ধুসুলভ’ নয়, এমন দেশের জন্য এমন শর্ত চাপাতে চান। শিল্পোন্নত দেশগুলির গোষ্ঠী জি-সেভেন চুক্তিভঙ্গের অভিযোগ করে সেই শর্ত মানতে প্রস্তুত নয় বলে শুক্রবারই জানিয়ে দিয়েছিল। চলতি সপ্তাহে বিষয়টিকে কেন্দ্র করে চূড়ান্ত সংঘাতের আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

জ্বালানির মূল্য পরিশোধে পুতিনের শর্ত মানতে নারাজ জি-সেভেন

আপডেট সময় ১০:১৬:২২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৯ মার্চ ২০২২

ইউক্রেনে হামলার জেরে নিষেধাজ্ঞায় পতিত রাশিয়া থেকে জ্বালানি আমদানির মূল্য রুবলে মেটানোর শর্ত প্রত্যাখ্যান করেছে শিল্পোন্নত দেশগুলির গোষ্ঠী জি-সেভেন। এর ফলে চলতি সপ্তাহেই বিষয়টির নিষ্পত্তি না হলে ইউরোপে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ হতে পারে।

ইউক্রেনে হামলার কারণে রাশিয়ার উপর একাধিক নিষেধাজ্ঞা চাপানো হয়েছে। কিন্তু সে দেশ থেকে জ্বালানি সরবরাহের উপর নির্ভরশীলতার কারণে প্রবল চাপের মুখেও এখনো পেট্রোলিয়াম, গ্যাস ও কয়লা আমদানি বন্ধ করেনি ইউরোপ।

ফলে প্রতিদিন কোটি কোটি ইউরো আয় করছে মস্কো। কিন্তু খোদ রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ইউরো বা ডলারের বদলে রুবলে জ্বালানির দাম মেটানোর শর্ত চাপানোর ফলে নতুন সংকট সৃষ্টি হচ্ছে।

পুতিন শুধু ‘বন্ধুসুলভ’ নয়, এমন দেশের জন্য এমন শর্ত চাপাতে চান। শিল্পোন্নত দেশগুলির গোষ্ঠী জি-সেভেন চুক্তিভঙ্গের অভিযোগ করে সেই শর্ত মানতে প্রস্তুত নয় বলে শুক্রবারই জানিয়ে দিয়েছিল। চলতি সপ্তাহে বিষয়টিকে কেন্দ্র করে চূড়ান্ত সংঘাতের আশঙ্কা দেখা দিচ্ছে।