1. moulvibazar24.backup@gmail.com : admin :
  2. mrrahel7@gmail.com : rahel Ahmed : rahel Ahmed
  3. bm.ssc.batb@gmail.com : Shahab Ahmed : Shahab Ahmed
বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ খবর
আইজিপির পক্ষ থেকে মৌলভীবাজারের বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রাণ বিতরণ পরিবেশের উন্নয়ন দৃশ্যমান করতে কর্মকর্তাদের কঠোর নির্দেশ পরিবেশমন্ত্রীর মৌলভীবাজার জেলা জাসাসের আহবায়কে উদ্যোগে পানিবন্দী পরিবারে মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ শ্রীমঙ্গল উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল মাহির কোলজুড়ে আসেনি কোনো সন্তান শ্রীমঙ্গলে ‘‘ইউনিয়ন পরিষদের বাজেটে ওয়াশ বরাদ্ধ,প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি’’ শীর্ষক এক কনসালটেশন কর্মশালা পুলিশের অভিযানে কুলাউড়ায় ইয়াবাসহ ২ কারবারি গ্রেফতার কোটচাঁদপুরে  কিশোরি ক্লাবের সচেতনতামূলক সভা কোটচাঁদপুরে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে শিক্ষার্থীদের স্টোর রুমে আটকে রাখার অভিযোগ মৌলভীবাজারে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠা বিষয়ক কর্মশালা

দেশের পরিবেশ ও বন রক্ষায় কৃষকদের এগিয়ে আসতে হবে…..পরিবেশ ও বনমন্ত্রী

  • প্রকাশের সময় সোমবার, ১১ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৬৮ পঠিত

মৌলভীবাজার২৪ ডেস্ক:  পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মোঃ শাহাব উদ্দিন বলেছেন, দেশের পাহাড়, টিলা ও বন রক্ষা করে সার্বিক পরিবেশ উন্নয়নে কৃষকদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে। জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলায় খাল-বিল, নদী-নালা সংরক্ষণে এগিয়ে আসতে হবে। মন্ত্রী আরো বলেন, দেশের পরিবেশকে বাসযোগ্য করতে আমাদের প্রচুর পরিমাণে বৃক্ষরোপণ করতে হবে।

সোমবার মৌলভীবাজারের বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলায় ২০২১-২২ অর্থবছরে খরিফ-১ মৌসুমে আউশ প্রণোদনা কর্মসূচির আওতায় ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে আউশ বীজ ও রাসায়নিক সার বিতরণ এবং উন্নয়ন সহায়তার আওতায় ভর্তুকিমূল্যে কৃষি যন্ত্র বিতরণের উদবোধন অনুষ্ঠানে ঢাকাস্থ সরকারি বাসভবন হতে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিবেশমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পরিবেশমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে পরিকল্পনা মোতাবেক কাজ করছে। কৃষির উন্নয়নের ওপরই দেশের সার্বিক উন্নয়ন ও অগ্রগতি নির্ভরশীল। বর্তমান কৃষিবান্ধব সরকার দেশের চাহিদা পূরণ করে খাদ্যে উদবৃত্ত দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে সম্ভাব্য সবকিছু করছে। কৃষদের সার, উন্নতমানের বীজ এবং আধুনিক কৃষি উপকরণসহ প্রয়োজনীয় সব কিছু সরবরাহ অব্যাহত রাখবে সরকার।
সভায় অন্যান্যের মধ্যে বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী অফিসার খন্দকার মুদাচ্ছির বিন আলী, জুড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার সোনিয়া সুলতানা এবং বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলা পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

উল্লেখ্য, অনুষ্ঠানে বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলার ৩ হাজার ৬০০ জন কৃষকের প্রত্যেককে ৫ কেজি আউশ বীজ, ২০ কেজি ডিএপি সার , ১০ কেজি এমওপি সার বিতরণ করা হয়। এছাড়াও, ভর্তুকি মুল্যে  ৯ টি কম্বাইন হারভেস্টার , ৪ টি পাওয়ার থ্রেসার  এবং ২ টি রিপার প্রদান করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করতে এখানে ক্লিক করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই সংক্রান্ত আরোও খবর