1. moulvibazar24.backup@gmail.com : admin :
  2. mrrahel7@gmail.com : rahel Ahmed : rahel Ahmed
  3. bm.ssc.batb@gmail.com : Shahab Ahmed : Shahab Ahmed
পদ্মাসেতু উদ্বোধনের টাকা বন্যার্তদের মাঝে বিলিয়ে দিন... দুলু - moulvibazar24.com
শনিবার, ১৩ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৪৫ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ খবর
মনু নদীর বন্যা প্রতিরোধ “মাষ্টার প্রকল্প” অর্থের অভাবে ধীরগতি মৌলভীবাজারে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদে সমাবেশ কমলগঞ্জে টেণ্ডার ছাড়াই কাজ…নানা অনিয়মের অভিযোগ শনিবার তিনশ টাকা মজুরির দাবিতে চা বাগান শ্রমিকদের লাগাতার কর্মবিরতির ঘোষণা মৌলভীবাজারে আন্তর্জাতিক যুব দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা ও গাছের চারা বিতরন বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা সারাদেশে বৃষ্টি হতে পারে তদন্ত সংস্থা-এফবিআইয়ের কার্যালয়ে হামলার চেষ্টা,বন্দুকধারী নিহত কোটচাঁদপুর ম্যানেজিং কমিটির মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করতে গিয়ে দুই প্রার্থী লাঞ্ছিত ৩৬ বছর বিদেশে,অসুস্থ হয়ে রাজনগর ফিরলে গ্রহণ করেনি পরিবার!

পদ্মাসেতু উদ্বোধনের টাকা বন্যার্তদের মাঝে বিলিয়ে দিন… দুলু

  • প্রকাশের সময় শুক্রবার, ২৪ জুন, ২০২২
  • ৯৬ পঠিত

এম ইদ্রিস আলী, সিলেট থেকে ফিরে:
বিএনপি’র কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সাবেক মন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগ কখনো জনগণের কথা ভাবে না। তারা সব সময় লুটপাট করতে এবং নিজেদের আখের গোছাতে ব্যস্ত থাকে। দেশে যখনই কোনো সংকট দেখা দেয় তখনই তারা আনন্দ-উৎসবে মেতে ওঠে। সিলেটের মানুষ যখন ত্রাণের জন্য হাহাকার করছে তখন আওয়ামী লীগ সরকার শত কোটি টাকা খরচ করে বিদেশী শিল্পীদের এনে পদ্মা সেতু উদ্বোধনের নামে আনন্দ উৎসবে ব্যস্ত। আনন্দ উৎসবের নামে ব্যয় করা এই শত কোটি টাকা যদি বন্যার্তদের মাঝে বিলিয়ে দিন, তাহলে বানভাসী মানুষের দুর্ভোগ কিছুটা লাঘব হত’।

শুক্রবার সকালে সিলেট দক্ষিণ সুরমার বঙ্গবীর রোড এলাকায় সাবেক মন্ত্রী রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু ও সাবেক সংসদ সদস্য এম. নাসের রহমানের আর্থিক সহযোগিতায় ও জেলা বিএনপির ব্যবস্থাপনায় বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় বিএনপির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তারেক রহমানের নির্দেশে জেলা বিএনপির সভাপতি এম নাসের রহমানের ব্যক্তিগত প্রায় ৬ লক্ষাধিক টাকার চাল, ডাল, পেঁয়াজ, তেল ও আলু ত্রান হিসেবে বিতরণ করা হয়।

তিনি দুপুরে সিলেট সদর উপজেলার মুরাদপুর ও বিকালে সদর উপজেলার মগলাগাঁও আউশা এলাকায় বন্যাদুর্গতদের ত্রান বিতরণকালে পৃথক সমাবেশে বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী হেলিকপ্টারে এসে ৭ জনকে ত্রান দিয়ে বলে গেছেন, বিএনপি কোথায়? বিএনপি নাকি ঘরে বসে আছে’। প্রধানন্ত্রীর জবাব খন্ডন করে রুহুল কুদ্দুস বলেন, ‘বিএনপিকে ঘরে খুঁজলে পাওয়া যাবে না। বিএনপি রাস্তায়, বন্যার্তদের মাঝে ত্রান বিতরণ করছে।

তিনি প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাল্টা প্রশ্ন রেখে বলেন, কোথায় আপনার ভোটারবিহীন সিলেটের মন্ত্রী?।

তিনি বলেন, ‘দেশের ভবিষ্যত প্রধানমন্ত্রী দলের সিনিয়র ভাইস চেয়রম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে বিএনপি বানভাসী মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করে তিনি বলেন, বিএনপির মতো একটি বড় দলকে আপনি হিসেব করেন না। কথায় কথায় জিয়াউর রহমানের নাম কেন বলেন, খালেদা নাম, তারেক রহমানের কেন বলেন? কারণ, বিএনপিকে আপনার যত ভয়। তিনি বলেন, একবার ভোট দিয়ে দেখেন না, বাংলাদেশের জনগন আপনাদের ১০টা আসনও দেবে না’। তিনি বলেন, ‘সময় শেষ হয়ে আসছে। ক্ষমতায় নমরুদ থাকতে পারেনি, ফেরাউন থাকতে পারেনি, এরশাদও থাকতে পারেনি। তারা ধ্বংস হয়ে গেছে-আপনিও চিরদিন ক্ষমতায় থাকতে পারবেন না’। জনগনের উদ্যেশ্যে দুলু বলেন, ‘আপনারা পাহাড়া দেবেন, তারা যেন বর্ডার ক্রস করে পালাতে না পারে। তিনি বলেন, ভবিষ্যতে এদের বিচার হবে, কোন জুডিশিয়াল আদালতে নয়, জনগনের আদালতে এদের বিচার করা হবে’।

সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরীর সঞ্চালনায় ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী, মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য এম. নাসের রহমান।

মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন বলেন, ‘এই বন্যায় সরকার যে বরাদ্দ দিয়েছে তা খুবই অপ্রতুল। সিলেটের মানুষ যখন অনাহারে-অর্ধাহারে দিনাতিপাত করছে তখন আওয়ামী লীগের মন্ত্রী এমপিরা আনন্দ উৎসবে মেতে উঠেছেন। কেউ কেউ গায়ে হাওয়া লাগিয়ে বিদেশে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। আর বিএনপি ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা বানবাসি মানুষের পাশে আছে। আপনারাই সময়মত এর কঠোর জবাব দিবেন’।

মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইফুর রহমানের পুত্র এম নাসের রহমান বলেন, ‘আওয়ামী লীগ উন্নয়নের ফুলঝুড়ি দেয়- চারিদিকে নাকি উন্নয়ন আর উন্নয়ন। কিন্তু দেশের জনগণ তো উন্নয়ন দেখছে না। সিলেটের মানুষ বানের পানিতে ভেসে যাচ্ছে কিন্তু সরকারের সেদিকে ভ্রক্ষেপ নেই। সিলেটবাসীর প্রিয় নেতা এম সাইফুর রহমান মাত্র ৫ বছরে যে উন্নয়ন করেছিলেন আওয়ামী লীগের তের বছরে এই উন্নয়নের ধারে কাছেও যেতে পারিনি। ২০০৪ সালের ভয়াবহ বন্যায় তিনি মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়েছিন। কিন্তু বর্তমান মন্ত্রীরা বন্যা পরিদর্শনের নামে রাজকীয় নৌভ্রমণ করছেন, জনগনকে পানিবন্দি রেখে বিদেশে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। তিনি যদি বেঁচে থাকতেন এই দুঃসময়ে আপনাদেরকে ছেড়ে কোথাও যেতেন না। তাই সময়মত আওয়ামী লীগের এসব অপকর্মের দাঁতভাঙ্গা জবাব দিতে হবে’।

এ সময় সিলেট জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক শামীম আহমদ, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির সভাপতি হাজী সাহাব উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক কোহিনুর আহমদ সহ বিএনপির স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

এছাড়া এছাড়া মৌলভীবাজার জেলা বিএনপির প্রথম যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. ফখরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক বকসী মিছবাহউর রহমান, সহ-সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম রিপন, প্রচার সম্পাদক মো. ইদ্রিছ আলী,মৌলভীবাজার জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আবিদুর রহমান সোহান, জেলা জাসাসের সদস্য সচিব জসিম উদ্দিন, মৌলভীবাজার সদর থানা বিএনপির সহ-ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সাদিকুর রহমান ওয়েছ ত্রান বিতরণ কর্মসূচীতে অংশ নেন।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এই সংক্রান্ত আরোও খবর
© All rights reserved © 2019 moulvibazar24.com
Customized By BlogTheme