ঢাকা ০৯:২৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
ব্রেকিং নিউজ
মৌলভীবাজারে মাদক বিরোধী সেমিনার এসএসসি ২০২৪ ইং জিপিএ-৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদেরকে সোনার বাংলা আদর্শ ক্লাবের সংবর্ধনা প্রদান মৌলভীবাজারে অস্ত্র ও বিপুল পরিমান মাদকসহ একজন আটক  ৩০মে ন‍্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন মৌলভীবাজার এর উদ‍্যোগে ফ্রি হার্ট ক‍্যাম্প কলেজের একযুগ পূর্তি উপলক্ষ্যে বিশ্বায়ন-৩ এর প্রকাশনা উৎসব নিয়োগ পরিক্ষার  আগেই নিয়োগ বানিজ্যের অভিযোগ ম্যানেজিং কমিটির বিরুদ্ধে বিএনপির ৩ নেতা মৌলভীবাজার কারাগারে ২১৭ নেতাকে বহিষ্কার করলো বিএনপি মৌলভীবাজারে মন্দিরভিত্তিক শিশু গণশিক্ষা কার্যক্রম শীর্ষক জেলা কর্মশালা কোটচাঁদপুর  ড্রাগন ফলের গাছ কেটে দিয়েছেন দূর্বৃত্তরা

পর্তুগালে দেয়ালচাপায় মৌলভীবাজারের শাহিনসহ নিহত-দুই

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৯:২০:১০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মার্চ ২০২৩
  • / ৯২৪ বার পড়া হয়েছে

প্রবাস ডেস্ক:  পর্তুগালের কৃষি ও পর্যটন শহর বেজায়ে নিজ কর্মস্থলে দুজন বাংলাদেশি শ্রমিক দেওয়াল ভেঙে চাপা পড়ে মারা গেছেন। সোমবার বিকালে কনস্ট্রাকশনের কার করার সময় মারা যান তারা।

নিহতরা হলেন শাহিন আহমদ (৪৭) ও সুহেদ আহমেদ (৩২)।

শাহিন আহমদ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার মোকাবাজার এলাকার নিতেশ্বর গ্রামের মৃত আরশদ মোল্লার ছেলে। সুহেদ সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ থানার লক্ষনাবন্দ ইউনিয়নের করগাঁও উজানপাড়ার গ্রামের বাসিন্দা।

দুর্ঘটনার পর স্থানীয় জিএনআর পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে নিহতদের মরদেহ বেজার সেন্ট্রাল হাসপাতালের মর্গে লাশ পাঠানো হয়েছে।

শামীম এবং সুহেদের মৃত্যুতে লিসবনসহ গোটা পর্তুগালের বাংলাদেশ কমিউনিটিতে বর্তমানে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

পর্তুগালে দেয়ালচাপায় মৌলভীবাজারের শাহিনসহ নিহত-দুই

আপডেট সময় ০৯:২০:১০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২১ মার্চ ২০২৩

প্রবাস ডেস্ক:  পর্তুগালের কৃষি ও পর্যটন শহর বেজায়ে নিজ কর্মস্থলে দুজন বাংলাদেশি শ্রমিক দেওয়াল ভেঙে চাপা পড়ে মারা গেছেন। সোমবার বিকালে কনস্ট্রাকশনের কার করার সময় মারা যান তারা।

নিহতরা হলেন শাহিন আহমদ (৪৭) ও সুহেদ আহমেদ (৩২)।

শাহিন আহমদ মৌলভীবাজার সদর উপজেলার মোকাবাজার এলাকার নিতেশ্বর গ্রামের মৃত আরশদ মোল্লার ছেলে। সুহেদ সিলেট জেলার গোলাপগঞ্জ থানার লক্ষনাবন্দ ইউনিয়নের করগাঁও উজানপাড়ার গ্রামের বাসিন্দা।

দুর্ঘটনার পর স্থানীয় জিএনআর পুলিশ তাদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে নিহতদের মরদেহ বেজার সেন্ট্রাল হাসপাতালের মর্গে লাশ পাঠানো হয়েছে।

শামীম এবং সুহেদের মৃত্যুতে লিসবনসহ গোটা পর্তুগালের বাংলাদেশ কমিউনিটিতে বর্তমানে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।