1. mrrahel7@gmail.com : Admin : Mahbubur Rahel
  2. samadpress96@gmail.com : Samad Ahmed : Samad Ahmed
ফেসবুকে ব্যক্তিগত ছবি পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মামলা করবেন শিপ্রা | moulvibazar24.com
বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ১১:৫৭ অপরাহ্ন

ফেসবুকে ব্যক্তিগত ছবি পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে মামলা করবেন শিপ্রা

  • আপডেট সময় সোমবার, ১৭ আগস্ট, ২০২০

  ব্যক্তিগত ছবি ফেসবুকে পোস্টকারী পুলিশ কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করার কথা জানিয়েছেন শিপ্রা দেবনাথ।

সোমবার (১৭ আগস্ট) একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে দেয়া একান্ত এক সাক্ষাৎকারে শিপ্রা এ কথা জানান।

শিপ্রা বলেন, ‘মেজর সিনহা হত্যাকাণ্ডের পর রাতে এসে আমাদের কটেজ থেকে পুলিশ আমাদের দুটি মনিটর, ল্যাপটপ, ডেস্কটপ, ক্যামেরা, লেন্স, তিনটি হার্ডড্রাইভ এবং আমাদের ফোন ডিভাইস সব নিয়ে যায়। জব্দ তালিকায় যার কোনোটির কোনো উল্লেখ নেই। আমি জানি না, এখন কীভাবে বা কার কাছে সেসব ফেরত চাইব।’

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের গুলিতে নিহত সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খানের এই সহকর্মী বলেন, বিভিন্ন ছবি ও ভিডিও মাধ্যমে যারা আমার ব্যাক্তি জীবনকে অসহনীয় করে দিয়েছেন, তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে তথ্য প্রযুক্তির ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করব, কথা দিলাম।

তিনি বলেন, আমি একজন ছাত্রী, পড়াশোনার পাশাপাশি কাজ করি। একটি স্বাধীন দেশে একজন নারীর কারও অধিকার হরণ করে নিজের পছন্দ মতো বেঁচে থাকার অধিকার কি নেই? আমি মেজর সিনহা হত্যার বিচার চেয়ে আমি ও আমার সহকর্মীদের চরিত্র হননের অপচেষ্টার বিচার চাই, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সুনজর চাই। সেই সাথে দেশের সকল মানুষের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা চাই।

সাতক্ষীরার পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান গত ১৪ আগস্ট শিপ্রার ব্যক্তিগত কিছু মুহূর্তের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে তার নির্দোষ হওয়ার ব্যাপারে সন্দেহ প্রকাশ করেন। এরকম আরও ছবি আসার ব্যাপারেও ইঙ্গিত দেন তিনি।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণের পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের এসপি মিজানুর রহমান শেলিও অনুরূপ পোস্ট দিয়েছেন। শিপ্রার কিছু ছবি পোস্ট করে তিনি তার বিরুদ্ধে হওয়া মামলার যথার্থতার পক্ষে নিজের অবস্থানের কথা ফেসবুকে তুলে ধরেছেন। এই পোস্টগুলোতে যেসব মন্তব্য এসেছে তার অনেকগুলোই ছিল শিপ্রার জন্য অবমাননাকর। অধীনস্থ কিছু পুলিশ কর্মকর্তাকেও এসপির পক্ষে মন্তব্য করতে দেখা গেছে।

প্রতিবেদন অনুসারে, পুলিশ কর্মকর্তাদের দ্বারা পরিচালিত কিছু ফেসবুক গ্রুপ যেমন: ‘পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’, ‘স্যালুট টু বিডি পুলিশ’ এরকম কিছু গ্রুপেও ছবিগুলো পোস্ট করা হয়েছে।

জানা গেছে, সিনহা হত্যাকাণ্ডের দেড় বছর আগে সুনামগঞ্জের টাঙ্গুয়ার হাওড়ে ঘুরতে গিয়ে রাজধানীর স্ট্যামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিল্ম অ্যান্ড মিডিয়া স্টাডিজের ছাত্রী শিপ্রা দেবনাথের সঙ্গে সিনহার পরিচয়। পরিচয় থেকে বন্ধুত্ব, তারপর এক পর্যায়ে ভ্রমণ বিষয়ক ডকুমেন্টারি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন তারা।

সেই পরিকল্পনা থেকে ‘জাস্ট গো’ নামে ইউটিউব চ্যানেল ও ফেসবুক পেইজ খুলে ডকুমেন্টারি নির্মাণ শুরু করেন। শুটিং ও এডিটিংয়ে সহায়তার জন্য সহপাঠী সাহেদুল ইসলাম সিফাত ও তাহসিন রিফাত নূরকে সঙ্গে নিয়ে চারজনের দল হয়ে জুলাইয়ের শুরুর দিকে কক্সবাজারে গিয়েছিলেন শিপ্রা-সিনহারা।

এদিকে শিপ্রা নিয়ে ফেসবুকে উস্কারিমূলক পোস্ট করায় ২ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে রোববার (১৬ আগস্ট) সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মনোজ কুমার ভৌমিক হাইকোর্টে রিট দায়ের করেছেন। মঙ্গলবার (১৮ আগস্ট) এ বিষয়ে হাইকোর্টে শুনানি হতে পারে বলে জানিয়েছেন রিটকারী আইনজীবী।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ জুলাই রাতে টেকনাফের মারিশবুনিয়া পাহাড়ে ভিডিওচিত্র ধারণ করে মেরিন ড্রাইভ দিয়ে কক্সবাজারের হিমছড়ি এলাকার নীলিমা রিসোর্টে ফেরার পথে শামলাপুর তল্লাশিচৌকিতে পুলিশের গুলিতে নিহত হন (অব.) সেনা কর্মকর্তা সিনহা মো. রাশেদ খান।

এ ঘটনায় নিহতের বোন শারমিন শাহরিয়ার ফেরদৌস বাদী হয়ে গত ৫ আগস্ট টেকনাফের সাবেক ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ পরির্দশক লিয়াকত আলীসহ ৯ পুলিশ সদস্যকে আসামি করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। আর মামলাটির তদন্তভার দেয়া হয়েছে র‌্যাবকে। ইতোমধ্যে মামলার নতুন আইও ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন

এ সংক্রান্ত আরোও নিউজ