1. moulvibazar24.backup@gmail.com : admin :
  2. Editor@moulvibazar24.com : Editor :
  3. mrrahel7@gmail.com : rahel Ahmed : rahel Ahmed
  4. bm.ssc.batb@gmail.com : Shahab Ahmed : Shahab Ahmed
বাবার কাজে সহযোগিতা,সেই দুই সহোদরের দোকানের মিষ্টি খেতে চান প্রধানমন্ত্রী - moulvibazar24.com
মঙ্গলবার, ২৯ নভেম্বর ২০২২, ০৬:৪১ পূর্বাহ্ন
" "

বাবার কাজে সহযোগিতা,সেই দুই সহোদরের দোকানের মিষ্টি খেতে চান প্রধানমন্ত্রী

  • প্রকাশের সময় রবিবার, ১ মে, ২০২২
  • ৩৫৪ পঠিত

রাজশাহীর বাঘায় ঈদের ছুটিতে বাড়িতে এসে বাবার মিষ্টির দোকানের কাজে সহযোগিতা করা বিসিএস ক্যাডার ও তার ভাইয়ের কাছ থেকে তাদের দোকানের মিষ্টি খেতে চেয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পাশাপাশি সেই দুই ভাইয়ের এমন কাজের প্রশংসাও করেছেন সরকারপ্রধান।

দুই ভাই তাদের বাবা উত্তম কুমার পালের ফুটপাতের মিষ্টির দোকানে কাজ করছেন- এ নিয়ে প্রচারিত সংবাদ নজরে আসার পর তাদের দোকানের মিষ্টি খাওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

" "

রবিবার নিজের ফেসবুকে পেজে এ তথ্য জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মো. শাহরিয়ার আলম।

শনিবার রাতে সংবাদমাধ্যমে ওই দুই ভাইয়ের দোকানদারির খবর প্রচার হয়। এরপর রাজশাহী-৬ (বাঘা-চারঘাট) আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের মাধ্যমে সংবাদটি প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসে। প্রধানমন্ত্রী বিষয়টি জানার পর ফুটপাতের সেই মিষ্টির দোকানে দুই ভাইয়ের কাছে মিষ্টি চেয়েছেন বলে জানান পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

প্রতিমন্ত্রী তার নিজস্ব ফেসবুক পেজে লিখেছেন, আমানুল হক আমান তোমার করা প্রতিবেদন প্রধানমন্ত্রীর নজরে এনেছি। তিনি আমাকে যা বলেছেন তা হলো, ‘দুই ভাইকে বিশেষ পুরস্কার দেয়া উচিত। কাজের মূল্যায়ন করছে। আমার অভিনন্দন জানাবে। আমার জন্য ওই দোকান থেকে মিষ্টি আনবে।’

" "
তিনি আরও লেখেন- ‘এটা ফেসবুকে দিলাম কারণ, সবাইকে কাজে তার পরিবারকে সহযোগিতা করতে উৎসাহিত করা উচিত। এখন আমার তো কাজ বেড়ে গেল! তোমারও দায়িত্ব বেড়ে গেল!!! সুন্দর প্রতিবেদনটির জন্য তোমাকে ধন্যবাদ।’

এর আগে দুই ভাইকে নিয়ে প্রচারিত খবরে বলা হয়, রাজশাহীর বাঘায় ছুটিতে এসে বিসিএস ক্যাডারসহ দুই ভাই তাদের বাবা উত্তম কুমার পালের ফুটপাতের মিষ্টির দোকানে কাজ করছেন। এ দুজন হলেন অমিত কুমার পাল ও মৃণাল কুমার পাল। এদের মধ্যে অমিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পাস করে ৩৫তম বিসিএস পরীক্ষায় (শিক্ষা ক্যাডারে) উত্তীর্ণ হন। তিনি সান্তাহার সরকারি কলেজে চাকরিরত আছেন। আর মৃণাল এমবিবিএস শেষে করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত। এক সন্ধ্যায় আড়ানী পৌর বাজারের চাল হাটায় ওই দোকানে বসে দুই ভাইকে মিষ্টি বিক্রি করতে দেখা যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

" "
" "
এই সংক্রান্ত আরোও খবর
© All rights reserved © 2019 moulvibazar24.com
Customized By BlogTheme
" "