ঢাকা ১১:৩০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বিএনপিকে খুনিদের দল বললেন ধানের শীষের এমপি সুলতান মনসুর!

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১০:৪৫:৪৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২৩
  • / ১৭১ বার পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজার২৪ ডেস্ক: সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মনসুর। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক থাকাবস্থায় ওয়ান ইলেভেনের সময় সংস্কারবাদী হিসেবে পরিচিতি লাভ করায় দল থেকে ছিটকে পড়েন। পরে মূল ধারার রাজনীতি থেকে অনেকটা হারিয়ে যান।

পরে একাদশ সংসদ নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে বিএনপির প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে বিজয়ী হয়ে সংসদ সদস্য হন। সেই সুলতান মনসুর এবার জাতীয় সংসদে বিএনপির কঠোর সমালোচনা করলেন।

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) সংসদের বৈঠকে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপি নেতৃত্বেরও সমালোচনা করেন সাবেক এই আওয়ামী লীগ নেতা। শুধু তাই নয়, বিএনপিকে ‘খুনিদের’ দল বলেও আখ্যা দেন তিনি।

সুলতান মোহাম্মদ মনসুর বলেন, ‘বাংলাদেশকে মেরামত করতে হবে। কাদের কাছ থেকে শুনছি? পঁচাত্তরের খুনিদের কাছ থেকে শুনছি। মেরামত শব্দটি সাধারণত পরিবারের সঙ্গে ঘর মেরামত বোঝায়। তারা কি সেই মেরামত করতে চায় ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের মতো ঘটনা ঘটিয়ে? তারা কি সেই মেরামত করতে চায় খুনি জিয়া যেমনিভাবে পাকিস্তানের দালাল জাতিসংঘে মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে কথা বলেছিল সেরকম পরিবর্তন করে? জিয়ার দুঃশাসনে যে কারফিউর গণতন্ত্র, তারা কি সেই স্বৈরতন্ত্র করতে চায়? তাদের কথা শুনলে মনে হয় ওই দিকেই যাচ্ছে।’

মনসুর বলেন, ‘এক দল, দুই দল, ৫৪ দল বিভিন্ন দল করছে, আজকের সংসদে দাঁড়িয়ে এ কথা বলতে পারি- পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে বৈঠক করে যারা বাংলাদেশের রাজনীতির পরিবর্তন চান, সেই পাকিস্তানি ধারার রাজনীতি আর এ দেশে আসার সুযোগ নাই। যারা এই ধারার রাজনীতি করেন তাদের শুধু বলব- জীবনে কোনোদিন বিএনপির নেতৃত্বে বাংলাদেশ কোনো আন্দোলনে কোনো বিজয় তারা ছিনিয়ে আনতে পারেনি। ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তারা খুনি জিয়ার মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করেছিল। কিন্তু আন্দোলন সংগ্রাম করে মানুষের মন নিয়ে মানুষের মাধ্যমে এদেশে আন্দোলনের সফলতা তারা কোনোদিন আনতে পারে নাই, আগামীতেও আনার কোনো সুযোগ থাকবে না।

গণফোরাম থেকে নির্বাচিত হলেও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তার প্রতীক ছিল ধানের শীষ।

গত বিগত ১১ ডিসেম্বর সংসদ থেকে বিএনপির সাত এমপির পদত্যাগের পরে বর্তমান সংসদে আর তাদের প্রতিনিধিত্ব নেই। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আরেক এমপি গণফোরামের মোকাব্বির খান দলীয় প্রতীক উদীয়মান সূর্য্য নিয়ে নির্বাচনে জয়লাভ করেন। যদিও তার বিজয়ী হওয়ার পেছনেও মূল ভূমিকা বিএনপির।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

বিএনপিকে খুনিদের দল বললেন ধানের শীষের এমপি সুলতান মনসুর!

আপডেট সময় ১০:৪৫:৪৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২৩

মৌলভীবাজার২৪ ডেস্ক: সাবেক ছাত্রলীগ নেতা, ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মনসুর। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক থাকাবস্থায় ওয়ান ইলেভেনের সময় সংস্কারবাদী হিসেবে পরিচিতি লাভ করায় দল থেকে ছিটকে পড়েন। পরে মূল ধারার রাজনীতি থেকে অনেকটা হারিয়ে যান।

পরে একাদশ সংসদ নির্বাচনে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের ব্যানারে বিএনপির প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে বিজয়ী হয়ে সংসদ সদস্য হন। সেই সুলতান মনসুর এবার জাতীয় সংসদে বিএনপির কঠোর সমালোচনা করলেন।

সোমবার (১৬ জানুয়ারি) সংসদের বৈঠকে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে বিএনপি নেতৃত্বেরও সমালোচনা করেন সাবেক এই আওয়ামী লীগ নেতা। শুধু তাই নয়, বিএনপিকে ‘খুনিদের’ দল বলেও আখ্যা দেন তিনি।

সুলতান মোহাম্মদ মনসুর বলেন, ‘বাংলাদেশকে মেরামত করতে হবে। কাদের কাছ থেকে শুনছি? পঁচাত্তরের খুনিদের কাছ থেকে শুনছি। মেরামত শব্দটি সাধারণত পরিবারের সঙ্গে ঘর মেরামত বোঝায়। তারা কি সেই মেরামত করতে চায় ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের মতো ঘটনা ঘটিয়ে? তারা কি সেই মেরামত করতে চায় খুনি জিয়া যেমনিভাবে পাকিস্তানের দালাল জাতিসংঘে মুক্তিযুদ্ধের বিরুদ্ধে কথা বলেছিল সেরকম পরিবর্তন করে? জিয়ার দুঃশাসনে যে কারফিউর গণতন্ত্র, তারা কি সেই স্বৈরতন্ত্র করতে চায়? তাদের কথা শুনলে মনে হয় ওই দিকেই যাচ্ছে।’

মনসুর বলেন, ‘এক দল, দুই দল, ৫৪ দল বিভিন্ন দল করছে, আজকের সংসদে দাঁড়িয়ে এ কথা বলতে পারি- পাকিস্তানের আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসী দাউদ ইব্রাহিমের সঙ্গে বৈঠক করে যারা বাংলাদেশের রাজনীতির পরিবর্তন চান, সেই পাকিস্তানি ধারার রাজনীতি আর এ দেশে আসার সুযোগ নাই। যারা এই ধারার রাজনীতি করেন তাদের শুধু বলব- জীবনে কোনোদিন বিএনপির নেতৃত্বে বাংলাদেশ কোনো আন্দোলনে কোনো বিজয় তারা ছিনিয়ে আনতে পারেনি। ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে তারা খুনি জিয়ার মাধ্যমে ক্ষমতা দখল করেছিল। কিন্তু আন্দোলন সংগ্রাম করে মানুষের মন নিয়ে মানুষের মাধ্যমে এদেশে আন্দোলনের সফলতা তারা কোনোদিন আনতে পারে নাই, আগামীতেও আনার কোনো সুযোগ থাকবে না।

গণফোরাম থেকে নির্বাচিত হলেও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তার প্রতীক ছিল ধানের শীষ।

গত বিগত ১১ ডিসেম্বর সংসদ থেকে বিএনপির সাত এমপির পদত্যাগের পরে বর্তমান সংসদে আর তাদের প্রতিনিধিত্ব নেই। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আরেক এমপি গণফোরামের মোকাব্বির খান দলীয় প্রতীক উদীয়মান সূর্য্য নিয়ে নির্বাচনে জয়লাভ করেন। যদিও তার বিজয়ী হওয়ার পেছনেও মূল ভূমিকা বিএনপির।