ঢাকা ১১:৫৩ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মৌলভীবাজারে ১২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার ভারতীয় চোরাই পণ্য উদ্ধার : আটক-৩

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:৫৭:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ এপ্রিল ২০২২
  • / ৮৫৭ বার পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজা ২৪ ডেস্কঃ মৌলভীবাজার গোয়েন্দা শাখার বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় চোরাই পণ্য উদ্ধার করা হয়। এঘটনার সাথে জড়িত তিন জনকে আটক করা হয়।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল ) সকাল ১১ টটার দিকে জেলা গেয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ  বদিউজ্জামান এর নেতৃত্বে এসআই কাজী আরিফ আহম্মেদ, এএসআই রোমান মিয়া সঙ্গীয় ফোর্সসহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার শেরপুরস্ত বাদে ফতেহপুর এলাকার বরাকের পুল সংলগ্ন হারুন মিয়ার ফার্নিচারের দোকানের সামনে ট্রাক থেকে আনলোড করে কাভার্ড ভ্যানে লোড করার সময় বিপুল পরিমাণ অবৈধ ভারতীয় কসমেটিকসসহ ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃত পণ্যের মধ্যে রয়েছে ৩,২৪০পিছ Skinbrite cream, ২৭০ পিছ  Skinbrite Medicated Soap ও ৫,৬০০ পিছ BETNOVATE-N ক্রিম, যার আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ১২,৬০,৭০০/- টাকা ।

আটককৃতরা হলো জাহাঙ্গীর আলম (৩২), ট্রাক চালক নাছিম উদ্দিন(২২) ও কাভার্ড ভ্যান চালক ফজলু মিয়া(২৫)।

জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় গ্রেফতারকৃত জাহাঙ্গীর আলম এই বিপুল পরিমাণ অবৈধ পণ্য চোরাচালানের মূল হোতা। সে সিলেট মেট্টো পলিটন এলাকার এয়ারপোর্ট থানার চাঁদনীবন এলাকার আব্দুল্লাহ মিয়ার ছেলে।

গ্রেফতারকৃত আরো দুইজন হলো ট্রাক চালক নাছিম উদ্দিন। সে সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট থানার উজান ফতেপুর গ্রামের আব্দুল খালিক এর ছেলে এবং আপর আসামি ফজলু মিয়া সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমা থানার ধরাধরপুর গ্রামের মোঃ আঙ্গুর মিয়া’র ছেলে।

মৌলভীবাজার জেলার গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ বদিউজ্জামান জানান, জেলা গোয়েন্দা শাখার বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমাণ চোরাই মালামাল আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

মৌলভীবাজারে ১২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকার ভারতীয় চোরাই পণ্য উদ্ধার : আটক-৩

আপডেট সময় ০৪:৫৭:২১ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৯ এপ্রিল ২০২২

মৌলভীবাজা ২৪ ডেস্কঃ মৌলভীবাজার গোয়েন্দা শাখার বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমাণ ভারতীয় চোরাই পণ্য উদ্ধার করা হয়। এঘটনার সাথে জড়িত তিন জনকে আটক করা হয়।

মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল ) সকাল ১১ টটার দিকে জেলা গেয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ  বদিউজ্জামান এর নেতৃত্বে এসআই কাজী আরিফ আহম্মেদ, এএসআই রোমান মিয়া সঙ্গীয় ফোর্সসহ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মৌলভীবাজার সদর মডেল থানার শেরপুরস্ত বাদে ফতেহপুর এলাকার বরাকের পুল সংলগ্ন হারুন মিয়ার ফার্নিচারের দোকানের সামনে ট্রাক থেকে আনলোড করে কাভার্ড ভ্যানে লোড করার সময় বিপুল পরিমাণ অবৈধ ভারতীয় কসমেটিকসসহ ৩ জনকে আটক করা হয়েছে।

আটককৃত পণ্যের মধ্যে রয়েছে ৩,২৪০পিছ Skinbrite cream, ২৭০ পিছ  Skinbrite Medicated Soap ও ৫,৬০০ পিছ BETNOVATE-N ক্রিম, যার আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় ১২,৬০,৭০০/- টাকা ।

আটককৃতরা হলো জাহাঙ্গীর আলম (৩২), ট্রাক চালক নাছিম উদ্দিন(২২) ও কাভার্ড ভ্যান চালক ফজলু মিয়া(২৫)।

জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় গ্রেফতারকৃত জাহাঙ্গীর আলম এই বিপুল পরিমাণ অবৈধ পণ্য চোরাচালানের মূল হোতা। সে সিলেট মেট্টো পলিটন এলাকার এয়ারপোর্ট থানার চাঁদনীবন এলাকার আব্দুল্লাহ মিয়ার ছেলে।

গ্রেফতারকৃত আরো দুইজন হলো ট্রাক চালক নাছিম উদ্দিন। সে সিলেট জেলার গোয়াইনঘাট থানার উজান ফতেপুর গ্রামের আব্দুল খালিক এর ছেলে এবং আপর আসামি ফজলু মিয়া সিলেট জেলার দক্ষিণ সুরমা থানার ধরাধরপুর গ্রামের মোঃ আঙ্গুর মিয়া’র ছেলে।

মৌলভীবাজার জেলার গোয়েন্দা শাখার অফিসার ইনচার্জ বদিউজ্জামান জানান, জেলা গোয়েন্দা শাখার বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমাণ চোরাই মালামাল আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।