ঢাকা ০১:৪৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লাখাইয়ে বাড়ছে শিশু ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্ট জনিত রোগী

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০২:৫৩:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০২৩
  • / ১৯৬ বার পড়া হয়েছে

এম এ ওয়াহেদঃ  বর্তমানে আবহাওয়া পরিবর্তন এর সাথে সাথে বাড়ছে শিশু ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্ট জনিত রোগী।

 

লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে ৫০ শয্যা হাসপাতালে সোমবার (২৩ অক্টোবর) ৬১ জন রোগী ভর্তি আছে। তন্মধ্যে ৩৪ জন রোগীই শিশু। হাসপাতালে দায়ীত্বরত সিনিয়র নার্স জানান প্রতিদিনই শিশু বাচ্চা রোগী দিন দিন বাড়ছে।

 

তিনি জানান আমরা আমাদের সাধ্যানুযায়ী রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছি। এ ব্যাপারে বেশ কয়েকজন শিশু রোগীর অভিভাবক এর সাথে আলাপ করে জানা যায়, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সরকারীভাবে শিশু রোগীদের জন্য এন্টিবায়োটিক সিরাপ সরবরাহ না থাকায় বাহির থেকে কিনে আনতে হচ্ছে। এ ব্যপারে রোগীদের অভিভাবকদের দাবী স্বাস্থ্যসেবা অধিদপ্তর যেন শিশু রোগীদের জন্য এন্টিবায়োটিক সিরাপ সরবরাহের ব্যবস্থা নেন।

 

এ ব্যপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.কাজী শামসুল আরেফীন এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান প্রতিনিয়ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে কিন্তু বেড সংকট ও জনবল সংকট তাই আগত সেবা নিতে আসা রোগিরা কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ঠিকই কিন্তু আমরা আমাদের সাধ্যমত সেবা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। জনবল সংকট নিরসনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আমি চিঠি চালাচালি করেই যাচ্ছি কিন্তু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জনবল নিয়োগ দিতেছেন না।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

লাখাইয়ে বাড়ছে শিশু ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্ট জনিত রোগী

আপডেট সময় ০২:৫৩:২৯ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৩ অক্টোবর ২০২৩

এম এ ওয়াহেদঃ  বর্তমানে আবহাওয়া পরিবর্তন এর সাথে সাথে বাড়ছে শিশু ডায়রিয়া ও শ্বাসকষ্ট জনিত রোগী।

 

লাখাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে ৫০ শয্যা হাসপাতালে সোমবার (২৩ অক্টোবর) ৬১ জন রোগী ভর্তি আছে। তন্মধ্যে ৩৪ জন রোগীই শিশু। হাসপাতালে দায়ীত্বরত সিনিয়র নার্স জানান প্রতিদিনই শিশু বাচ্চা রোগী দিন দিন বাড়ছে।

 

তিনি জানান আমরা আমাদের সাধ্যানুযায়ী রোগীদের সেবা দিয়ে যাচ্ছি। এ ব্যাপারে বেশ কয়েকজন শিশু রোগীর অভিভাবক এর সাথে আলাপ করে জানা যায়, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সরকারীভাবে শিশু রোগীদের জন্য এন্টিবায়োটিক সিরাপ সরবরাহ না থাকায় বাহির থেকে কিনে আনতে হচ্ছে। এ ব্যপারে রোগীদের অভিভাবকদের দাবী স্বাস্থ্যসেবা অধিদপ্তর যেন শিশু রোগীদের জন্য এন্টিবায়োটিক সিরাপ সরবরাহের ব্যবস্থা নেন।

 

এ ব্যপারে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা.কাজী শামসুল আরেফীন এর সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান প্রতিনিয়ত রোগীর সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে কিন্তু বেড সংকট ও জনবল সংকট তাই আগত সেবা নিতে আসা রোগিরা কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে ঠিকই কিন্তু আমরা আমাদের সাধ্যমত সেবা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। জনবল সংকট নিরসনে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে আমি চিঠি চালাচালি করেই যাচ্ছি কিন্তু সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জনবল নিয়োগ দিতেছেন না।