ঢাকা ০১:০৬ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৫ জুন ২০২৩, ২২ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

হাওরে ধান কর্তন করলেন জেলা প্রশাসক উর্মি বিনতে সালাম

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ১২:০০:০৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৩
  • / ৩৩৬ বার পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজার২৪ ডেস্কঃ মৌলভীবাজারের হাওর এলাকায় আনুষ্ঠানিক ভাবে বোরো ধান কর্তন শুরু হয়েছে।

শনিবার ২৯ এপ্রিল দুপুরে সদর উপজেলার কাউয়াদিঘি হাওরের মিরপুর এবং রাজনগর উপজেলার কাশিমপুর পাম্প হাউজের পাশে বোরো ধান কর্তনের উদ্বোধন করেন, জেলা প্রশাসক ড. উর্মি বিনতে সালাম।

জেলা প্রশাসক স্থানীয় কৃষকদের নিয়ে বোরো ধান কর্তন করে উৎসাহ প্রদান করেন। পরে জেলা প্রশাসক যান্ত্রিক উপায়ে বোরো ধান কর্তন মাঠ পরিদর্শন করেন।

এসময় জেলা প্রশাসক কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে বলেন, রোরো ধান কর্তন আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সম্ভব হবে। তিনি ব্রি ধান ২৮ ও ২৯ চাষ না করার অনুরোধ জানিয়ে ব্রি ৮৮ এবং ব্রি ৮৯ চাষ করার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ্য কৃষকদের ইতোমধ্যে ভর্তূকি দেয়া শুরু হয়েছে।

মৌলভীবাজার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে ধান কর্তন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) প্রভাংশু সোম মহান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আব্দুল হক,  কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক সাছুদ্দিন আহমদ, স্থানীয় কৃষক, জেলা প্রশাসন ও কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা। চলতি মৌসুমে বোরো আবাদ হয়েছে ৬০ হাজার ৫৭ হেক্টর জমি। উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২ লক্ষ ২৯ হাজার মেট্রিক টন।

উল্লেখ্য জেলায় ব্রি ২৮, ব্রি ২৯ ও ব্রি ৪৮ ধান প্রায় ৫ হাজার হেক্টরের বেশী জমি ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে নষ্ঠ হয়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্থ্য কৃষকদের ইতোমধ্যে আউস ধান চাষাবাদের জন্য বীজ ও সার দেয়া শুরু হয়েছে।

 

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

হাওরে ধান কর্তন করলেন জেলা প্রশাসক উর্মি বিনতে সালাম

আপডেট সময় ১২:০০:০৫ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৯ এপ্রিল ২০২৩

মৌলভীবাজার২৪ ডেস্কঃ মৌলভীবাজারের হাওর এলাকায় আনুষ্ঠানিক ভাবে বোরো ধান কর্তন শুরু হয়েছে।

শনিবার ২৯ এপ্রিল দুপুরে সদর উপজেলার কাউয়াদিঘি হাওরের মিরপুর এবং রাজনগর উপজেলার কাশিমপুর পাম্প হাউজের পাশে বোরো ধান কর্তনের উদ্বোধন করেন, জেলা প্রশাসক ড. উর্মি বিনতে সালাম।

জেলা প্রশাসক স্থানীয় কৃষকদের নিয়ে বোরো ধান কর্তন করে উৎসাহ প্রদান করেন। পরে জেলা প্রশাসক যান্ত্রিক উপায়ে বোরো ধান কর্তন মাঠ পরিদর্শন করেন।

এসময় জেলা প্রশাসক কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে বলেন, রোরো ধান কর্তন আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে সম্ভব হবে। তিনি ব্রি ধান ২৮ ও ২৯ চাষ না করার অনুরোধ জানিয়ে ব্রি ৮৮ এবং ব্রি ৮৯ চাষ করার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, ক্ষতিগ্রস্থ্য কৃষকদের ইতোমধ্যে ভর্তূকি দেয়া শুরু হয়েছে।

মৌলভীবাজার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে ধান কর্তন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) প্রভাংশু সোম মহান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আব্দুল হক,  কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক সাছুদ্দিন আহমদ, স্থানীয় কৃষক, জেলা প্রশাসন ও কৃষি বিভাগের কর্মকর্তা। চলতি মৌসুমে বোরো আবাদ হয়েছে ৬০ হাজার ৫৭ হেক্টর জমি। উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২ লক্ষ ২৯ হাজার মেট্রিক টন।

উল্লেখ্য জেলায় ব্রি ২৮, ব্রি ২৯ ও ব্রি ৪৮ ধান প্রায় ৫ হাজার হেক্টরের বেশী জমি ব্লাস্ট রোগে আক্রান্ত হয়ে নষ্ঠ হয়ে গেছে। ক্ষতিগ্রস্থ্য কৃষকদের ইতোমধ্যে আউস ধান চাষাবাদের জন্য বীজ ও সার দেয়া শুরু হয়েছে।