ঢাকা ০১:৩৪ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৩ জুন ২০২৪, ৯ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

হিথ স্ট্রিক ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন,অবশেষে না ফেরার দেশ

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৫:৪৪:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৩ অগাস্ট ২০২৩
  • / ২৮৬ বার পড়া হয়েছে

ক্যান্সারের সঙ্গে যুদ্ধ করে অবশেষে না ফেরার দেশ পাড়ি জমিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিক। মৃত্যুকালে সাবেক এ জিম্বাবুয়াইন ক্রিকেটারের বয়স হয়েছিল ৪৯ বছর।

স্ট্রিকের মৃত্যুর বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন তার দেশের কয়েকজন ক্রিকেটার। সামাজিক মাধ্যম টুইটারে হেনরি ওলেঙ্গা লিখেছেন, ‘দুঃখের সংবাদ, হিথ স্ট্রিক পরপারে চলে গেছেন। শান্তিতে থেকো কিংবদন্তি। তোমার সঙ্গে খেলাটা আনন্দের ছিল। যখন আমার বোলিং স্পেল শেষ হয়ে যাবে, তখন পরপারে তোমার সঙ্গে দেখা হবে।’

হিথ স্ট্রিক জিম্বাবুয়ের ইতিহাসের সেরা ক্রিকেটারদের একজন। ২০০০ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত দেশকে নেতৃত্ব দিয়েছেন এই পেসার। খেলেছেন ৬৫ টেস্ট ও ১৮৯ ওয়ানডে।

জিম্বাবুয়ের ইতিহাসে একমাত্র বোলার হিসেবে টেস্টে ১০০ উইকেট শিকার করেছেন স্ট্রিক। ১২ বছরের ক্যারিয়ারের পুরোটা সময় দেশটির বোলিং ইউনিটকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাটিংয়েও অবদান রাখতেন স্ট্রিক। টেস্টে ২১৬ উইকেটের পাশাপাশি তাই রান ১৯৯০। ১১টি ফিফটির সঙ্গে সেঞ্চুরিও রয়েছেন একটি। ওয়ানডেতে ২৩৯ উইকেটের সঙ্গে রান করেছেন ২৯৪৩।

১৯৯৩ সালের ডিসেম্বরে পাকিস্তানের বিপক্ষে করাচিতে টেস্ট অভিষেকে উইকেটশূন্য ছিলেন স্ট্রিক। তবে রাওয়ালপিন্ডিতে পরের টেস্টেই ৮ উইকেট নিয়ে জানান দেন নিজের সামর্থ্যের।

২০০৫ সালে শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেন স্ট্রিক। পরে কোচিং ক্যারিয়ারে জড়ান। ২০১৪ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় দলের বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

আইসিসি দুর্নীতিবিরোধী বিধির বেশ কয়েকটি ধারা ভঙ্গের দায়ে ২০২১ সালে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে তাকে ৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন স্ট্রিক।

গত মে মাসে খবর আসে, কোলন এবং যকৃতের ক্যান্সারে আক্রান্ত স্ট্রিক। ক্যান্সর তখন ছিল চতুর্থ স্তরে। দক্ষিণ আফ্রিকার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল তাকে। তখনই চিকিৎসকেরা জানিয়ে দিয়েছিলেন, স্ট্রিকের বেঁচে ফেরাটা হবে অলৌকিক।

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

হিথ স্ট্রিক ক্যান্সারের কাছে হার মানলেন,অবশেষে না ফেরার দেশ

আপডেট সময় ০৫:৪৪:২৬ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ২৩ অগাস্ট ২০২৩

ক্যান্সারের সঙ্গে যুদ্ধ করে অবশেষে না ফেরার দেশ পাড়ি জমিয়েছেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক বোলিং কোচ হিথ স্ট্রিক। মৃত্যুকালে সাবেক এ জিম্বাবুয়াইন ক্রিকেটারের বয়স হয়েছিল ৪৯ বছর।

স্ট্রিকের মৃত্যুর বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিশ্চিত করেছেন তার দেশের কয়েকজন ক্রিকেটার। সামাজিক মাধ্যম টুইটারে হেনরি ওলেঙ্গা লিখেছেন, ‘দুঃখের সংবাদ, হিথ স্ট্রিক পরপারে চলে গেছেন। শান্তিতে থেকো কিংবদন্তি। তোমার সঙ্গে খেলাটা আনন্দের ছিল। যখন আমার বোলিং স্পেল শেষ হয়ে যাবে, তখন পরপারে তোমার সঙ্গে দেখা হবে।’

হিথ স্ট্রিক জিম্বাবুয়ের ইতিহাসের সেরা ক্রিকেটারদের একজন। ২০০০ সাল থেকে ২০০৪ সাল পর্যন্ত দেশকে নেতৃত্ব দিয়েছেন এই পেসার। খেলেছেন ৬৫ টেস্ট ও ১৮৯ ওয়ানডে।

জিম্বাবুয়ের ইতিহাসে একমাত্র বোলার হিসেবে টেস্টে ১০০ উইকেট শিকার করেছেন স্ট্রিক। ১২ বছরের ক্যারিয়ারের পুরোটা সময় দেশটির বোলিং ইউনিটকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি।

বোলিংয়ের পাশাপাশি ব্যাটিংয়েও অবদান রাখতেন স্ট্রিক। টেস্টে ২১৬ উইকেটের পাশাপাশি তাই রান ১৯৯০। ১১টি ফিফটির সঙ্গে সেঞ্চুরিও রয়েছেন একটি। ওয়ানডেতে ২৩৯ উইকেটের সঙ্গে রান করেছেন ২৯৪৩।

১৯৯৩ সালের ডিসেম্বরে পাকিস্তানের বিপক্ষে করাচিতে টেস্ট অভিষেকে উইকেটশূন্য ছিলেন স্ট্রিক। তবে রাওয়ালপিন্ডিতে পরের টেস্টেই ৮ উইকেট নিয়ে জানান দেন নিজের সামর্থ্যের।

২০০৫ সালে শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেন স্ট্রিক। পরে কোচিং ক্যারিয়ারে জড়ান। ২০১৪ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত বাংলাদেশ জাতীয় দলের বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

আইসিসি দুর্নীতিবিরোধী বিধির বেশ কয়েকটি ধারা ভঙ্গের দায়ে ২০২১ সালে সব ধরনের ক্রিকেট থেকে তাকে ৮ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন স্ট্রিক।

গত মে মাসে খবর আসে, কোলন এবং যকৃতের ক্যান্সারে আক্রান্ত স্ট্রিক। ক্যান্সর তখন ছিল চতুর্থ স্তরে। দক্ষিণ আফ্রিকার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল তাকে। তখনই চিকিৎসকেরা জানিয়ে দিয়েছিলেন, স্ট্রিকের বেঁচে ফেরাটা হবে অলৌকিক।