নিজের “প্যাশন” কে “প্রফেশন”করতে চান নাবিলা

744

insurance news more article

বিশেষ প্রতিনিধিঃ মৌলভীবাজারের মেয়ে নাবিলা কোরাইশী ফেসবুক পেইজের মাধ্যমে কেক সেল করে বিশেষ জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন।তিনি ইউনাইটেড ইন্টারনেশনাল ইউনিভার্সিটি থেকে গ্রেজুয়েশন কম্পলিট করেছেন এবং মুলত চাকুরির ধরা বাধা নিয়মের প্রতি কিছু অনীহা, আর তার স্বাধীন চেতা মনোভাব থেকেই নিজে নিজে কিছু একটা করার চেষ্টা।

শনিবার (৩০ নভেম্বর) রাত ৮ টার দিকে মৌলভীবাজার২৪ ডট কমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারের মাধ্যমে জানা যায়। তিনি এক প্রশ্নের উত্তরে বলেন, ক্লাস ৮ম শ্রেণী থেকেই আমার বেকিং এর প্রতি অনেক আগ্রহ ছিল, বলতে পারেন এইটা আমার প্যাশন। যখনই অবশর পেতাম, কিংবা কোন অকেশন আসত, কেক বানানোর সুযোগটা কখনোই ছাড়তে চাইতাম না। নিজের এই আগ্রহের প্রতিফলন ই ঘটেছে ২০১৮ সালে ক্রিয়েটিভ ক্রিয়েশন্স নামক পেইজের মাধ্যমে।

তিনি বলেন, আমি কখনো প্রফেশনালি বেকিং এর কোর্স করি নি, এখন পর্যন্ত যে কোন কিছুর সমাধানে ইউটিউবই ভরসা। ঢাকায় ইউনিভার্সিটি তে যখন পড়তাম তখন থেকেই স্বপ্ন দেখতাম নিজের শহরে কেক নিয়ে কিছু একটা করার। কারণ তখন পর্যন্ত আমাদের জেলা শহরে কাস্টমাইজড বিভিন্ন থিম কেকের প্রচলন ঘটে নি। অল্প পু্ঁজি বিনিয়োগের সুবিধা ও ঝুঁকি অনেকটা কম হওয়াতে অনলাইনে শুরু টাই ভাল পন্থা মনে করেছি।

তিনি আরো বলেন, আমি গ্রেজুয়েশন কম্পলিট করে বাসায় ব্যাক করার পর সাথে সাথে চাকুরি না খোঁজে প্রথম দিকে নিজের হাত খরচ চালানোর জন্য ১২জন ছাত্রছাত্রী পড়াতাম আমার বাসায়।ঐ টিউশন গুলা থেকে প্রাপ্ত টাকার মধ্যে ২২০০ টাকা দিয়ে প্রথম কেক এর পুঁজি হিসাবে বিনিয়োগ করি। আমার প্রথম কেক এর ওর্ডারটি পেইজ শুরু হওয়ার আগেই পেয়ে থাকি। একদিন বাসায় কোন ওকেশন ছাড়াই নিজের শখে একটা কেক বানাই, এবং কেকটি দেখতে খুবই আকর্ষনীয় এবং লোভনীয় হওয়ায় আমি নিজের ফেইসবুক আইডিতে তা শেয়ার দেই। ঐ দিনই ফ্রেন্ডলিস্ট থেকে ২জন আমাকে ইনবক্সে কেক এর ওর্ডার করেন। পরবর্তিতে তাদের প্রশংসা থেকে অনুপ্রানিত হয়েই পেইজ ওপেন করার মনোবল তৈরী হয়। এর পর আমি পেইজ ওপেন করে ক্রিয়েটিব ক্রিয়েশন নামে নামকরণ করি। আমি ১৮ সালের ২১ সেপ্টেম্বর প্রথম কেক সেল দেই। এই পর্যন্ত প্রায় ৫০০ অধিক কেক সেল করেছি। প্রতি মাসে আমার গড়ে ৬০-৭০পাউন্ড কেক এর ওরডার এসে থাকে। তিনি আরও বলেন, সবার সহযোগিতা পেলে তিনি অনেক দূর এগিয়ে যাবেন এবং একজন সফল উদ্দোক্তা হয়ে উঠবেন।

insurance news more article