newspaper

কাউকে দায়িত্ব না দিয়েই হজে গেলেন মেয়র আরিফ

0 7

মৌলভীবাজার টোয়েন্টিফোর ডেস্ক: কাউকে দায়িত্ব না দিয়েই পবিত্র হজ পালনের জন্য সিলেট ত্যাগ করেছেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। বুধবার বিকেলে তিনি ঢাকার উদ্দেশ্যে সিলেট ত্যাগ করেন। আজ বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা থেকে হজ্ব ফ্লাইটে তিনি সৌদি আরব গমন করবেন।

মেয়রের সহধর্মিনী সামা হক চৌধুরীও তাঁর সাথে হজ পালন করবেন। হজে যাওয়ার আগে মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী জানিয়েছেন- পবিত্র হজ পালন শেষে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে তিনি সিলেট ফিরে আসবেন। সুস্থভাবে যাতে তিনি হজ পালন শেষে ফিরে আসতে পারেন, সেজন্য নগরবাসীর কাছে দোয়া কামনা করেছেন তিনি।

তবে মেয়র হজে থাকাকালিন সময়ের জন্য সিলেট সিটি তার ভারপ্রাপ্ত দায়িত্ব কোন প্যানেল মেয়রকে দিয়ে যাননি। এটি নিশ্চিত করেছে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের একটি নির্ভরযোগ্য সূত্র। যদিও এর আগে শাহ এএএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় কারাগারে যাওয়ার প্রাক্কালে প্যানেল মেয়র-২ ও কাউন্সিলর অ্যাডভোকেট সালেহ আহমদকে দায়িত্ব দিয়ে গিয়েছিলেন। প্যানেল মেয়র-১ ও কাউন্সিলর রেজাউল হাসান কয়েস লোদীকে ডিঙিয়ে এ দায়িত্বভার দেয়ায় বেশ জটিলতার সৃষ্টি হয়েছিল তখন। এটি আদালত পর্যন্ত গড়ায়।

উল্লেখ্য, মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী সৌদি আরবে ঈদুল আযহা পালনসহ হজের সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে আগামী সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহে সিলেট ফিরবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

এদিকে, স্থানীয় সরকার (সিটি করপোরেশন) আইন ২০০৯ এর ২১ ধারার (১) উপধারায় বলা হয়েছে, ‘অনুপস্থিতি কিংবা অসুস্থতাহেতু বা অন্য কোন কারণে মেয়র দায়িত্ব পালনে অসমর্থ হইলে তিনি পুনরায় স্বীয় দায়িত্ব পালনে সমর্থ না হওয়া পর্যন্ত এই আইনের ধারা ২০ অনুযায়ী জ্যেষ্ঠতার ক্রমানুসারে মেয়রের প্যানেলের কোন সদস্য মেয়রের সকল দায়িত্ব পালন করিবেন।’ কিন্তু এবারো মেয়র আরিফের অনুপস্থিতিতে কেউ ভারপ্রাপ্ত মেয়র হিসেবে বসতে পারলেন না।

প্রসঙ্গত, সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলায় অভিযুক্ত হয়ে সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী কারান্তরীণ হন। পরে মেয়রের পদ থেকে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় তাকে বরখাস্ত করে। ওই সময় সিসিকের ভারপ্রাপ্ত মেয়রের পদ নিয়ে আইনী লড়াইয়ে জড়িয়ে পড়েন প্যানেল মেয়ররা। বিষয়টির কোনোও সুরাহা হয়নি তখন।

Leave A Reply

Your email address will not be published.