ঢাকা ১১:২২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ০৩ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ২১ মাঘ ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

শ্রীমঙ্গল পঞ্চম চা নিলামে ৪ কোটি ১২ লক্ষ টাকার চা বিক্রি

নিজস্ব সংবাদ :
  • আপডেট সময় ০৪:১২:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ জুন ২০২২
  • / ১৩৪ বার পড়া হয়েছে

মৌলভীবাজার২৪ ডেস্কঃ দেশের আন্তর্জাতিক দ্বিতীয় চা নিলাম কেন্দ্রে চলতি বছরের চতুর্থ চা নিলামে প্রায় ৪ কোটি ১২ লক্ষ টাকার চা বিক্রি হয়েছে।

বুধবার (২২ জুন) মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার অস্থায়ী নিলাম কেন্দ্র জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে চা নিলাম কার্যক্রম সম্পন্ন হয়।

নিলামে শ্রীমঙ্গলের ৫টি ব্রোকার্সসহ শতাধিক বায়ার অংশ নেন। ৫টি ব্রোকার্সের মাধ্যমে চা নিলামে ৩২টি বাগানের মোট ২ লাখ ৫ হাজার ৯৭৩ কেজি চা তোলা হয়। তারমধ্যে সবচেয়ে বেশী দামে চা বিক্রি হয় হবিগঞ্জের বৃন্দাবন চা বাগানের চা ২৪০ টাকা প্রতি কেজি দরে।

রুপসী বাংলা ব্রোর্কাসের চেয়ারম্যান সৈয়দ মনীর এবং সোনার বাংলা ব্রোকার্সের পরিচালক শহীদ আহমদ জানান,শ্রীমঙ্গলের ৫টি ব্রোকার্সের মাধ্যমে ২ লাখ ৫ হাজার ৯৭৩ কেজি তোলা হয়েছে।অধিকাংশই চা বিক্রি হয়েছে।

ক্লোনাল চা বাগানের ব্যবস্থাপক রনি ও শ্রীমঙ্গল নাহার চা বাগানের ব্যবস্থাপক পীষুশ কান্তি ভট্রাচার্য্য বলেন, পঞ্চম নিলামে তুলনামূলক ভালো দাম পেয়েছি। চেষ্টা করি চায়ের গুণগত মান ধরে রাখতে।

সেলিম টি পরিচালক সেলিম আহমদ বলেন, নিলামে উৎসবমূখর পরিবেশ ছিলো। প্রতিটি অকশনে নতুন চা তোলা হয়। যার ফলে চা বেশি বিক্রি হচ্ছে।

 

ট্যাগস :

নিউজটি শেয়ার করুন

শ্রীমঙ্গল পঞ্চম চা নিলামে ৪ কোটি ১২ লক্ষ টাকার চা বিক্রি

আপডেট সময় ০৪:১২:৫৫ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ জুন ২০২২

মৌলভীবাজার২৪ ডেস্কঃ দেশের আন্তর্জাতিক দ্বিতীয় চা নিলাম কেন্দ্রে চলতি বছরের চতুর্থ চা নিলামে প্রায় ৪ কোটি ১২ লক্ষ টাকার চা বিক্রি হয়েছে।

বুধবার (২২ জুন) মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলার অস্থায়ী নিলাম কেন্দ্র জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে চা নিলাম কার্যক্রম সম্পন্ন হয়।

নিলামে শ্রীমঙ্গলের ৫টি ব্রোকার্সসহ শতাধিক বায়ার অংশ নেন। ৫টি ব্রোকার্সের মাধ্যমে চা নিলামে ৩২টি বাগানের মোট ২ লাখ ৫ হাজার ৯৭৩ কেজি চা তোলা হয়। তারমধ্যে সবচেয়ে বেশী দামে চা বিক্রি হয় হবিগঞ্জের বৃন্দাবন চা বাগানের চা ২৪০ টাকা প্রতি কেজি দরে।

রুপসী বাংলা ব্রোর্কাসের চেয়ারম্যান সৈয়দ মনীর এবং সোনার বাংলা ব্রোকার্সের পরিচালক শহীদ আহমদ জানান,শ্রীমঙ্গলের ৫টি ব্রোকার্সের মাধ্যমে ২ লাখ ৫ হাজার ৯৭৩ কেজি তোলা হয়েছে।অধিকাংশই চা বিক্রি হয়েছে।

ক্লোনাল চা বাগানের ব্যবস্থাপক রনি ও শ্রীমঙ্গল নাহার চা বাগানের ব্যবস্থাপক পীষুশ কান্তি ভট্রাচার্য্য বলেন, পঞ্চম নিলামে তুলনামূলক ভালো দাম পেয়েছি। চেষ্টা করি চায়ের গুণগত মান ধরে রাখতে।

সেলিম টি পরিচালক সেলিম আহমদ বলেন, নিলামে উৎসবমূখর পরিবেশ ছিলো। প্রতিটি অকশনে নতুন চা তোলা হয়। যার ফলে চা বেশি বিক্রি হচ্ছে।